এমপির অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকা পিয়ন করোনা পজিটিভ

একে বিজয়  সিনিয়ির স্টাফ রিপোর্টার:

টাঙ্গাইলের বাসাইলে বুধবার (২৪ জুন) উপজেলা কৃষি অফিস কৃষকদের সবজি  বীজ বিতরণের এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেখানে স্থানীয় এমপি জোয়াহেরুল ইসলামও উপস্থিত ছিলেন। ওই অনুষ্ঠানে কোরআন তেলাওয়াত, কৃষকদের মাঝে সবজি বীজ বিতরণে সহযোগিতা করেন উপজেলা কৃষি অফিসের পিয়ন দুলাল হোসেন। পরের দিন বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) কৃষকদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার আরেকটি অনুষ্ঠান ছিল। সেই অনুষ্ঠান শেষে ছিল মধ্যাহ্নভোজের আয়োজন। সেখানেও উপস্থিত ছিলেন দুলাল। পরে বৃহস্পতিবার রাতে জানা যায় তিনি করোনা পজিটিভ। নমুনা পরীক্ষা করতে দেওয়ার বিষয়টি গোপন রেখেই তিনি নিয়মিত অফিস করতেন বলেও জানা গেছে।

জানা যায়, ১৬ জুন উপজেলা কৃষি অফিসের পিয়ন দুলাল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নমুনা দেন। এরপর তিনি আইসোলেশনে না থেকে নিয়মিত অফিস করছিলেন। বিষয়টি তিনি কাউকে জানাননি। এছাড়াও ২৪ জুন উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ও উপজেলা কৃষি অফিসে মধ্যাহ্নভোজের কাজেও সহযোগিতা করেন। নমুনা দেওয়ার ৯ দিন পর বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) রাতে তার রিপোর্ট আসে। রিপোর্টে তার করোনা পজিটিভ আসে।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. ফিরোজুর রহমান বলেন, ‘১৬ জুন দুলালের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। সে সময় তাকে তার বাড়িতে আইসোলেশনে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তিনি আইসোলেশনে না থেকে নিয়মিত অফিস করছিলেন। বৃহস্পতিবার রাতে তার রিপোর্টে করোনা পজিটিভ এসেছে।’

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নাজনীন আক্তার বলেন, ‘তার নমুনা দেওয়ার বিষয়টি আমার জানা ছিল না। বৃহস্পতিবার রাতে হাসপাতাল থেকে ফোন করে দুলালের করোনা পজিটিভের বিষয়টি জানানো হয়। এখন তাকে বাড়িতে আইসোলেশনে থাকতে বলা হয়েছে।’
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শামছুন নাহার স্বপ্না বলেন, ‘বুধবার উপজেলা হলরুমের অনুষ্ঠানে কৃষি অফিসের পিয়ন দুলাল উপস্থিত ছিল। কৃষি অফিস লকডাউনের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। এছাড়াও চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করে তার সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের যার যার বাড়িতে আইসোলেশনে রাখার ব্যবস্থা করা হবে।’

বৃহস্পতিবারের এই অনুষ্ঠানে উপজেলা কৃষি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে কৃষকদের প্রশিক্ষণে কৃষি অধিদফতরের ঢাকা অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালক কৃষিবিদ বিভূতি ভূষণ সরকার ও জেলা কৃষি অধিদফতরের উপ-পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) ইসমাইল হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

আর বুধবারের অনুষ্ঠানে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কাজী অলিদ ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামছুন নাহার স্বপ্না, কাশিল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মির্জা রাজিক, কাঞ্চনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মামুন-অর-রশিদ খান,  উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নাজনীন আক্তারসহ অর্ধশতাধিক লোক উপস্থিত ছিলেন।

নিউজ ডেস্ক

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Next Post

টাঙ্গাইলে সকল উপজেলার নদীর পানি বৃদ্ধি,আগাম বন্যার সম্ভাবনা

সোম জুন ২৯ , ২০২০
এবিএম আতিকুর রহমান, সিনিয়র স্টাফ রিপাের্টার:: বৃষ্টি ও উজান থেকে আসা ঢলে টাঙ্গাইলের সব ক’টি নদীর পানি আশংকা জনক হারে বেড়েই চলেছে । ছোট বড় নদী নালা,খাল বিল ও নিম্ন ভূমি গুলো পানিতে কানায় কানায় ভরে উঠেছে। এর মধ্যে যমুনা, ঝিনাই ও ধলেশ্বরী নদীর পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। […]